• ঢাকা
  • শনিবার, ১৫ই জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ১লা আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
প্রকাশিত: ৪ এপ্রিল, ২০২২
সর্বশেষ আপডেট : ৪ এপ্রিল, ২০২২
Designed by Nagorikit.com

কনস্টেবল নাজমুল টিভি দেখেন না, ব‌্যবহার করেন বাটন ফোন

কুমিল্লা জার্নাল
কনস্টেবল নাজমুল টিভি দেখেন না, ব‌্যবহার করেন বাটন ফোন

নিজস্ব প্রতিবেদক

টিপ পরা নিয়ে রাজধানীর ফার্মগেট এলাকায় এক প্রভাষককে হেনস্তার ঘটনায় গণমাধ‌্যম ও সামাজিক যোগাযোগমাধ‌্যমে আলোচনা-সমালোচনার বিষয় কিছুই জানতেন না বলে জানিয়েছেন অভিযুক্ত পুলিশ কনস্টেবল নাজমুল তারেক।

সোমবার (৪ এপ্রিল) রাতে কনস্টেবল নাজমুলকে জিজ্ঞাসাবাদের পর এসব তথ্য জানান তেজগাঁও বিভাগ পুলিশের উপকমিশনার (ডিসি) বিপ্লব কুমার সরকার।

এ ঘটনার তদন্তকারী কর্মকর্তা বলেন, নাজমুল বাটন মোবাইল ব্যবহার করতেন এবং তিনি টেলিভিশনও দেখতেন না। পুলিশ তাকে এ বিষয়ে জিজ্ঞাসাবাদের জন‌্য ডেকে আনলে এসব তথ্য জানতে পারেন তিনি। ওই আচরণের জন্য তিনি অনুতপ্ত।

ওই কর্মকর্তা জানান, ২ এপ্রিল ঘটনা ঘটার পর অভিযুক্ত পুলিশ সসদ্যকে খুঁজে বের করতে সময় লেগেছে দুদিন। ডিএমপি কমিশনার, আইজিপি ও স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীও ঘটনার যথাযথ তদন্তের নির্দেশ দেন। কনস্টেবল নাজমুলকে শনাক্ত করার পর তদন্তের স্বার্থে তাকে ডাকা হয়। পরবর্তীতে তার কাছ থেকে এসব ঘটনার সত্যতা মেলে।

তদন্তকারী কর্মকর্তা জানান, নাজমুলকে ডাকার কারণ তিনি জানেন কিনা জিজ্ঞেস করলে তিনি বলেন, ‘আমি তো কিছুই জানি না স্যার।’

পরে ওই দিনের ঘটনা তুলে ধরা হলে অভিযুক্ত কনস্টেবল নাজমুল বলেন, ‘টিপ পরার কথা নিয়ে সারাদেশে এত তোলপাড় হয়েছে বা হবে এটা আমি কখনোই ভাবতে পারিনি। আমি তো স্যার বাটন মোবাইল ফোনসেট ব্যবহার করি। এ ছাড়া দুদিন টেলিভিশনে খবর না দেখার কারণে ঘটনা সম্পর্কে আমি কিছুই জানতে পারিনি।’

তেজগাঁও বিভাগ পুলিশের উপকমিশনার (ডিসি) বিপ্লব কুমার সরকার ঢাকাপ্রকাশকে বলেন, আমাদের প্রাথমিক কাজ ছিল অভিযুক্তকে শনাক্ত করা। জিডিতে অভিযুক্তের নাম, পদবি ও মোটরসাইকেলের নম্বর পরিপূর্ণ ছিল না। শুধু সংক্ষিপ্ত বিবরণী ছিল। তবে আমরা চেষ্টা করে পরিচয় নিশ্চিত হয়েছি। অভিযুক্ত নাজমুল তারেক কনস্টেবল হিসেবে কর্মরত ছিলেন ডিএমপির প্রটেকশন বিভাগে। তার গ্রামের বাড়ি যশোরে। তার বিরুদ্ধে বিভাগীয় ব্যবস্থা প্রক্রিয়াধীন। পাশাপাশি ওই শিক্ষকের জিডিরও তদন্ত চলছে। বিস্তারিত তদন্ত শেষে জানানো হবে।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে শেরেবাংলা নগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) উৎপল বড়ুয়া বলেন, অভিযুক্ত কনস্টেবল নাজমুল তারেক পুলিশ লাইনে সংযুক্ত থেকে আইপি, ভিভিআইপিদের নিরাপত্তার দায়িত্ব পালন করতেন। আমরা জানতে পেরেছি তার বিরুদ্ধে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশ আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করেছে।

টিপ পরা নিয়ে শিক্ষিকাকে হেনস্তার ঘটনায় অভিযুক্ত কনস্টেবলকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন ডিএমপি কমিশনার মোহা. শফিকুল ইসলাম। সোমবার (৪ এপ্রিল) বিকালে ডিএমপি কমিশনার মোহা. শফিকুল ইসলাম এ তথ্য জানান।

শফিকুল ইসলাম বলেন, কনস্টেবল নাজমুলের জন্য পুলিশের বদনাম হয়েছে এজন্য তাকে বরখাস্ত করা হলো।

প্রসঙ্গত, তেজগাঁও কলেজের থিয়েটার অ্যান্ড মিডিয়া স্টাডিজ বিভাগের এক শিক্ষককে টিপ পরা নিয়ে গালিগালাজ করেন ওই পুলিশ কনস্টেবল। ঘটনার বর্ণনা দিয়ে ওই শিক্ষক শেরেবাংলা নগর থানায় লিখিত অভিযোগ করেন।

আরও পড়ুন

  • জাতীয় এর আরও খবর