• ঢাকা
  • শুক্রবার, ১৪ই জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ৩১শে জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
প্রকাশিত: ৮ আগস্ট, ২০২২
সর্বশেষ আপডেট : ৮ আগস্ট, ২০২২
Designed by Nagorikit.com

কাজ করতে গিয়ে লাশ হয়ে ফিরলেন নাঙ্গলকোটের যুবক মামুন

কুমিল্লা জার্নাল

মোঃ বশির আহমেদ, নাঙ্গলকোট।।
কুমিল্লার নাঙ্গলকোটের বক্সগঞ্জ ইউনিয়নের অষ্টগ্রামের গিয়াস উদ্দিনের ছেলে মামুন (২৩) পরিবারের স্বচ্ছলতা আনতে কাজ করতে গিয়ে লাশ হয়ে ফিরছেন বাড়ীতে।
রবিবার ভোরে জেলার দাউদকান্দি হাইওয়ে সড়কে মামুনের লাশ পড়ে থাকতে দেখে স্হানীয় লোকজন বিষয়টি পুলিশের জাতীয় জরুরী সেবা ৯৯৯ কে জানান। ৯৯৯ এর সহযোগীতায় দাউদকান্দি থানা পুলিশ মামুনের লাশ উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত বলে ঘোষনা দেয়। মামুনের শরীরে কয়েকটি আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। পুলিশ মামুনের লাশ ময়না তদন্তের জন্য কুমিল্লা মেডিকাল কলেজ হাসপাতালে পাঠায়। ময়না তদন্ত শেষে স্বজনরা লাশ নিয়ে বাড়ী পৌঁছালে পরিবারের লোকজনের আত্মচিৎকারে আকাশ বাতাস ভারী হয়ে উঠে। মামুনের মা ছেলের শোকে বার বার মুর্চা যাচ্ছে। সঙ্গাহীন হয়ে পড়ে আছে সন্তান সম্ববা স্ত্রী।
স্হানীয় ইউনিয়ন পরিষদ মেম্বার সাকের হোসেন জানান, মামুন এক সপ্তাহ আগে
তাদের পাশ্ববর্তী কালা মিয়া ছেলে আলাউদ্দিনের সাথে কুমিল্লার আলেখ্যা চরে একটি মোটর গ্যারেজে কাজ করতে বাড়ী থেকে বের হয়। তবে কিভাবে কেন কারা তাকে হত্যা করা হয়েছে এখনো তার সঠিক তথ্য পাওয়া যায়নি।
এলাকাবাসী তদন্তপূর্বক এ ঘটনার রহস্য উদ্ঘাটনে প্রশাসনের উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।
দাউদকান্দি মডেল থানার উপ পরিদর্শক ( এস আই) গৌবিন্দ দাস বলেন, লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্ত করে পরিবারের নিকট হস্তান্তর করা হয়েছে। পারিবার থেকে অভিযোগ পেলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্হা গ্রহণ করা হবে।

 

কুমিল্লাজার্নাল.কম/জাহিদ

আরও পড়ুন

  • কুমিল্লা এর আরও খবর