• ঢাকা
  • রবিবার, ২৩শে জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ৯ই আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
প্রকাশিত: ১১ ডিসেম্বর, ২০২১
সর্বশেষ আপডেট : ১১ ডিসেম্বর, ২০২১
Designed by Nagorikit.com

কুভিসক বাঁধন ইউনিট ২০২২ সালের কার্যকরী কমিটি গঠন

কুমিল্লা জার্নাল
জামাল হোসাইন ভূঁইয়া।
একের রক্ত অন্যের জীবন, রক্তই হোক আত্মার বাঁধন” এই শ্লোগানকে সাথে নিয়ে এবং রক্তদানকে সামাজিক আন্দোলনে পরিণত করার জন্য ২৪ অক্টোবর ১৯৯৭ সালে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে যাত্রা শুরু করে বাঁধন । (স্বেচ্ছায় রক্তদাতাদের সংগঠন) এরই ধারাবাহিকতায় কুমিল্লার অসহায় মানুষের পাশে দাঁড়াতে ও তাদের বিনামূল্যে রক্ত দানের মাধ্যমে সহায়তা করার লক্ষ্য নিয়ে দক্ষিণ পূর্ব বাংলার শ্রেষ্ঠ বিদ্যাপীঠ কুমিল্লা ভিক্টোরিয়া সরকারি কলেজের এক ঝাঁক মানবতা প্রেমীর হাত ধরে ২০০৬ সালের ১০ জুন যাত্রা শুরু করে বাঁধন, কুমিল্লা ভিক্টোরিয়া সরকারি কলেজ ইউনিট।
গত ১১ ডিসেম্বর ( শনিবার ) কার্যকরী পরিষদ-২০২২ সালের কমিটি ঘোষণা করে কুমিল্লা ভিক্টোরিয়া সরকারি কলেজ ইউনিট,বাঁধন। সভাপতি নির্বাচিত হয় – মারুফ মজুমদার ইমন, সাধারণ সম্পাদক -মাহবুবুর রহমান, কেন্দ্রিয় পর্যবেক্ষক মোঃ আকতার হোসেন, সহ সভাপতি মোঃ সফিউল্লাহ, খাদিজা আক্তার সাথী, সহ সাধারণ সম্পাদক শরীফ মাহমুদ শান্ত, সাংগঠনিক সম্পাদক গাজী রাসেল হোসাইন, সহ সাংগঠনিক সম্পাদক ফাতেমা জোহরা, কোষাধ্যক্ষ ফাতেমা আক্তার, দপ্তর সম্পাদক নাসরিন আক্তার নিপু, প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক ইমন হোসাইন, তথ্য ও শিক্ষা সম্পাদক তাহমিনা আক্তার আদিবা, নির্বাহী সদস্য শাহাদাত হোসাইন, রোকসানা আক্তার কলি সহ ১৭ সদস্যের কমিটি ঘোষণা করা হয়। সৃষ্টি লগ্ন থেকে এই অঞ্চলের অসহায় মানুষের জন্য বিনামূল্যে সামাজিক কাজ করে আসছে। বাঁধনের মূলমন্ত্রকে বুকে ধারণ করে বাঁধনের সহায়তা আরও বহু মানুষের মধ্যে ছড়িয়ে দিতে। শিক্ষার্থীদের দ্বারা পরিচালিত অঞ্চল, দল, মত, ধর্ম ও বর্ণ নিরপেক্ষ, সম্পূর্ণ অরাজনৈতিক, অসাম্প্রদায়িক, ও স্বেচ্ছাসেবী সামাজিক সংগঠন। স্বেচ্ছায় রক্তদানে উদ্বুদ্ধকরণ, স্বেচ্ছায় রক্তদান এবং অন্যান্য সেবা ও সচেতনতামূলক কর্মকাণ্ডের মাধ্যমে সুস্থ সমাজ বিনির্মানে সামাজিক আন্দোলন গড়ে তোলার পাশাপাশি সারাদেশের ছাত্র ও যুবসমাজকে স্বেচ্ছায় রক্তদানে উদ্বুদ্ধ করা , বিনামূল্যে রক্তের গ্রুপ নির্ণয় করা, আহত ও মুমূর্ষুদের প্রয়োজনে স্বেচ্ছায় রক্তদান করা ,বৃহত্তর জনগোষ্ঠীকে স্বেচ্ছায় রক্তদান সহ বিভিন্ন সেবা ও সচেতনতামূলক কার্যক্রমে অংশগ্রহণে উৎসাহ প্রদান করা, বিভিন্ন প্রাকৃতিক ও মানব সৃষ্ট দুর্যোগ মোকাবেলায় জরুরী ত্রাণ ও পূর্ণবাসন কার্যক্রম পরিচালনা করে বাঁধন । এখন পর্যন্ত বাঁধন ৫৩ টি জেলায় ও ৭৫টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে কাজ করে আসছে।
বাঁধন, কুভিক ইউনিট আত্মপ্রকাশের পর থেকেই ক্যাম্পাস ও ক্যাম্পাসের বাহিরে বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, বিভিন্ন জেলা-উপজেলায়, বিভিন্ন স্বেচ্ছাসেবী সামাজিক সংগঠনকে বিনামূল্যে রক্তের গ্রুপ নির্ণয় কর্মসূচি সম্পাদন করে আসছে এবং মুমূর্ষুদের জরুরী রক্তের প্রয়োজনে বিনামূল্যে রক্ত সরবরাহ করে আসছে। বাঁধন কুভিক ইউনিট কলেজ চলাকালীন সময়ে প্রতিদিন সকাল ১০ টা থেকে দুপুর ১ টা পর্যন্ত বিনামূল্যে রক্তের গ্রুপ জানিয়ে দেয়া ও মুমূর্ষুদের রক্তের ব্যবস্থা করে থাকে। এছাড়াও সপ্তাহে প্রতি শনিবার সংগঠনটির সাপ্তাহিক কার্যক্রম/সভা অনুষ্ঠিত হয়। দক্ষ কার্যকরী কমিটি ও নিয়মিত সদস্যদের নিয়ে বাঁধন কুভিক ইউনিটের কর্মীরা পড়াশোনার পাশাপাশি স্বেচ্ছায় মানবসেবার এ মহৎ কাজে নিয়োজিত। মানবসেবায় নিয়জিত সংগঠনটি অত্র কলেজ তথা কুমিল্লা অঞ্চলের ব্যাপক সুনাম বয়ে আনছে। পাশাপাশি স্বপ্ন দেখছে সেদিনের যেদিন বাংলাদেশের প্রতিটি মানুষ নিজ রক্তের গ্রুপ জানবে এবং স্বেচ্ছায় রক্তদানে এগিয়ে আসবে।

আরও পড়ুন

  • ক্যাম্পাস এর আরও খবর