• ঢাকা
  • শনিবার, ২২শে জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ৮ই আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
প্রকাশিত: ১৯ জানুয়ারি, ২০২২
সর্বশেষ আপডেট : ১৯ জানুয়ারি, ২০২২
Designed by Nagorikit.com

কুমিল্লা মসজিদ ভাঙ্গার অভিযোগ

কুমিল্লা জার্নাল

নিজস্ব প্রতিবেদক।।
কুমিল্লা শহরতলীর চাঁনপুর এলাকায় সরকারের এক নম্বর খাস খতিয়ানের সম্পত্তিতে নির্মিত একটি মসজিদ ভেঙ্গে নিয়ে যাওয়া হচ্ছে। খবর পেয়ে বুধবার মসজিদ ভাঙার কাজ বন্ধ করে দিয়েছেন কুমিল্লা আদর্শ সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা জাকিয়া আফরিন।
স্থানীয় বাসিন্দারা জানান, কুমিল্লা সদর উপজেলার পাঁচথুবী ইউনিয়নের চাঁনপুর মধ্যপাড়া এলাকায় প্রায় ৩০ বছর আগে বন্দিশাহী জামে মসজিদ নির্মাণ করা হয় এলাকাবাসীর অর্থায়নে। গত প্রায় ৫ বছর আগে ওই মসজিদের পাশে নতুন আরেকটি মসজিদ নির্মাণ করা হয়েছে। এরপর থেকে বন্দিশাহী জামে মসজিদটি পরিত্যক্ত অবস্থায় রয়েছে। গত তিনদিন আগে মসজিদটি ভেঙে ফেলার কাজ শুরু করেন এলাকার বিল্লাল হোসেন। মসজিদের স্থানে মার্কেট নির্মাণ করবেন বিল্লাল হোসেন নামের একজনী। বিল্লাল হোসেন চাঁনপুর এলাকার মৃত কালা মিয়ার ছেলে।
অভিযোগ প্রসঙ্গে বিল্লাল হোসেন বলেন, বাবা-চাচারা প্রায় ৩০ বছর আগে মসজিদটি নির্মাণ করেছেন। মসজিদটির জায়গাও আমাদের দেওয়া, এটা খাস জায়গা নয়। আমার বাবা-চাচারা জায়গাটি মসজিদের নামে ওয়াকফ্ করে দিয়েছেন। মসজিদটি দীর্ঘদিন ধরে পরিত্যক্ত। এজন্য এটি ভেঙে সেখানে একটি হাফেজিয়া মাদ্রাসা ও এতিমখানা করার উদ্যোগ নিয়েছি। মসজিদের স্থানে মার্কেট নির্মাণ করার কথা মিথ্যা ও বানোয়াট। আমি কাজগপত্র নিয়ে ইউএনও’র কাছে যাবো।
কুমিল্লা আদর্শ সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) জাকিয়া আফরিন বলেন, ওই মসজিদটি সরকারের এক নম্বর খাস খতিয়ানে থাকা সম্পত্তিতে নির্মিত হয়েছে। তবে আমরা এটির অনুমোদন দেইনি। এরপরও সরকারি সম্পত্তিতে থাকা মসজিদ তিনি (বিল্লাল) এভাবে ভাঙতে পারেন না। খবর পেয়ে ভাঙার কাজ বন্ধ করে দিয়েছি। তাকে বলেছি, কীভাবে তিনি এটি ভাঙতে পারেন, তা কাগজপত্রসহ আমাদেরকে জানাতে।

আরও পড়ুন

  • জাতীয় এর আরও খবর