• ঢাকা
  • শনিবার, ১৫ই জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ১লা আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
প্রকাশিত: ২৯ নভেম্বর, ২০২৩
সর্বশেষ আপডেট : ২৯ নভেম্বর, ২০২৩
Designed by Nagorikit.com

বুড়িচংয়ে মামলার স্বাক্ষী হত্যার হুমকি

কুমিল্লা জার্নাল

 

 

স্টাফ রিপোর্টার।।

কুমিল্লার বুড়িচং উপজেলার পূর্বহুড়া গ্রামে জমি সংক্রান্ত বিষয়ে হামলা বাড়ীঘর ভাংচুর এবং অর্থ ও মালামাল মামলার স্বাক্ষী হওয়ায় দেশীয় অস্ত্র দিয়ে প্রাননাশের হুমকি দিয়েছেন ওই মামলার আসামী সাজেদুল হক পাশা ও তার সহযোগীরা। এ ঘটনায় ওই মামলার ১নং সাক্ষী জীবনের নিরাপত্তা চেয়ে গত ২৫শে নভেম্বর বুড়িচং থানায় সাধারন ডায়েরি করেন।

এ বিষয়ে ভোক্তভোগী আহসানুজ্জামান জানা,পূর্বহুড়া এলাকার তাজুল ইসলামের সাথে একই এলাকার মোবারক মিয়া ও তার ভাই লোকমান হোসেনের সাথে জমি সংক্রান্ত বিরোধ চলে আসছিল, এই জমি সংক্রান্ত বিষয়ের জের ধরে দৌলত আহমেদ এর নেতৃত্বে তাজুল ইসলাম ও তার ছেলে সুমন আহমেদ এর উপর বেশ কয়েকবার হামলা করা হয় পাশাপাশি বাড়ীঘর ভাংচুর সহ মালামাল লুট করা হয়ে এ বিষয়ে গত ১৭ই অক্টোবর তাজুল ইসলাম বাদী হয়ে তাদের নামে একটি মামলা করেন।

বিবাদীদের বিরদ্ধে বিজ্ঞ আদালতের সি আর মামলা নং ৬৬৪/২৩, ধারা- ১০৯/৪৪৭/৪৪৮/৩৭৯/৩৮০/৩২৭/৩৪/৫০৬ দঃ বিঃ বিজ্ঞ আদালতে বিচারাধীন। উক্ত মামলার বাদী আমাকে ১নং সাক্ষী হিসেবে মানিয়াছে বিধায়, উক্ত মামলা প্রত্যাহার করে নিতে গত ২০ শে নভেম্বর হতে অদ্যবদি অপরাপর বিবাদীগণ আমাকে প্রাণ নাশের হুমকীসহ ভয়-ভীতি প্রদর্শন অব্যাহত রাখিয়াছে।

এখানে উল্লেখ্য যে, স্থানীয় দোকানদার আঃ হক এর প্রত্যক্ষ্য মদদে সাজেদুল হক পাশা ও তার সহযোগীরা দেশীয় অস্ত্র সংগ্রহ করেছে বলে বিশ্বস্ত সূত্রে জানা যায়। তাহার দোকানে অপরাপর বিবাদীদেরকে নিয়ে প্রতিনিয়ত আড্ডা জমাইয়া থাকে, দোকানের পিছনে এলাকার যুবকদেরকে দুই পক্ষে কেরাম বোর্ড খেলার আসড় বসাইয়া টাকার বিনিময়ে জুয়ার ব্যাবসা সহ, তাহার চা ও মুদি ব্যবসার অন্তরালে লাইসেন্স বিহীন যেকোন রোগের ঔষধ/অবৈধ পানীয় এলাকার যুবকদের নিকট বিক্রি করার ফলে যুবকদের লেখা-পড়া এবং উজ্জ্বল ভবিষ্যতকে হুমকির মুখে ফেলছে।

নাম না বলার শর্তে ঐ এলাকার একজন প্রত্যক্ষদর্শী জানান, গত ২১শে অক্টোবর ২৩ তারিখ বিকালে সাজেদুল হক পাশা ও সহযোগীরা একই এলাকার আব্দুল হকের দোকানে স্বশরীরে এসে স্বাক্ষীদের নতুন তৈরীকৃত ৪টি ছেনি (দেশীয় অস্ত্র) দিয়ে কুপিয়ে জখম করার হুমিকি দিয়ে যান এবং উল্লেখিত বিষয়ে স্বাক্ষীদের সাবধান হতে খবর পৌছেঁ দিতে আব্দুল হককে বলে যান পাশাপাশি মামলার আসামিদেরকে ওই মামলায় সাক্ষী না দিতে বাড়িতে গিয়ে প্রাণনাশের হুমকি দিয়ে আসছেন বলেও ঐ ব্যাক্তি নিশ্চিত করেন। প্রশাসনের সদস্যরা বিবাদীদের বাড়ীতে অভিযানকালে ভয়ানক ধারালো অস্ত্রের সন্ধ্যান পাওয়া যাইবে বলেও এলাকার অনেকে জানান।

এই বিষয়ে মামলার বিবাদী ফকির দৌলত আহমেদ,বলেন, ঘটনার সত্য নয়, বিষয়টি যেহেতু আদালতে বিচারধীন রয়েছে,তাই আমি মন্তব্য করবো না ।

এমতাবস্থায় বিবাদীদের ভয়ে মামলার সকল সাক্ষীর পরিবারের লোকজন চরম নিরাপত্তা হীনতায় ভূগিতেছে। সাক্ষীরা স্থানীয় প্রশাসনের নিকট তাদের ও পরিবারের নিরাপত্তার দাবি জানিয়েছেন।

আরও পড়ুন

  • কুমিল্লা এর আরও খবর