• ঢাকা
  • রবিবার, ২৩শে জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ৯ই আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
প্রকাশিত: ২৫ ফেব্রুয়ারি, ২০২২
সর্বশেষ আপডেট : ২৫ ফেব্রুয়ারি, ২০২২
Designed by Nagorikit.com

মুরাদনগরে পিতাকে না পেয়ে  শিশুকে  কুপিয়ে জখম

কুমিল্লা জার্নাল
কুমিল্লা  প্রতিনিধি ।। কুমিল্লা জেলার   মুরাদনগরে পিতাক মারতে না  পেয়ে  দুধের শিশুকে কুপিয় জখম করছে  তাদের প্রতিবশীরা । বসত বাড়ীর সিমানা সোজা বাকাঁ ক নিয়ে বিরোধের জের ধরে পিতাকে মারতে  না পেরে  ২২  মাসের দুধের শিশু আব্দুর রহমানক কুপিয়ে জখম করছে প্রতিবেশী নজরুল ইসলাম (৪২) ও তার সঙ্গীরা । মারাত্বক জখম অবস্থায় শিশুটিক কুমিল্লা  মডিক্যাল কলজ হাসপাতাল ভর্তি করা হয়ছে । আহত শিশুটি গাজীপুর গ্রামর শাহীন আলমের  ছেলে । শিশুটির মা রুজিনা আক্তার বাদী হয় বাঙ্গরা বাজার থানায় মামলা দায়র করছন। শুক্রবার পর্যন্ত পুলিশ কাউক আটক করত পারেনি বলে জানা যায়।
আহত রেহানা আক্তার জানান,  মাদক ব্যবসায়ী আল ইসলাম, নজরুল ইসলাম,  শুভ ও সুমন এর নেত্রীত্বে  ১৩/১৪ জনর একটি সংঘবদ্ধ সস্ত্রাসী দল দেশীয় অস্ত্র নিয়ে আমাদর বাড়িত অতর্কিত হামলা চালায়। এসময় আমার দেবর শাহীন প্রাণের ভয়ে বিল্ডিংয়র ভেতর লুকিয়ে দরজা বন্ধ করে রাখে।  সস্ত্রাসীরা শাহীনকে মারতে না পেরে গেইটের বাহিরে থাকা  ২২ মাসর  শিশু আব্দুর রহমানকে কুপিয়ে  জখম করে ।
শিশুটির পিতা শাহীন  জানান, আল ইসলাম ও নজরুল বাহিনীর দ্বারা আমি  হামলার শিকার হয়েছি। ১১ মাস আগে তারা আমাকে মারার জন্য  হামলা করে  কিন্তু ভাগ্যক্রমে আমি বেচেঁ যাই। ওই ব্যাপারে তখন আমি  থানায় অভিযাগ করি। তখন স্থানীয় গ্রামের মাতাবররা এটি মিমাংশা করে দেন ।  তারা এখন আবার আমাকে  মারার জন্য ঘরে এসে আক্রমণ করে । কিন্তু আমাকে না পেয়ে  আমার   শিশুকে  কুপিয়ে মাথা ও চোখের উপর  হামলার  কারনে রক্তাক্ত অবস্থায় জখম করে  ।
গাজীপুর গ্রামর দেলোয়ার হাসন দেলু, বাহা উদ্দিন ও ফোরকান জানান, নজরুল, আল ইসলাম, শুভ এরা মাদক, চুরিসহ  নানা অপকর্মের সাথে জড়িত রয়ছে ।   শাহীন আলমকে  মারতে না পেরে তার  শিশুটিক নৃশংস ভাবে দা  দিয়ে কুপিয়ছে । আল ইসলাম এখনো  ৫ টি মামলার হাজিরা দেয়।  এদের দমন করা না গেলে  এলাকায় শান্তি ফিরে আসবে না ।
অভিযুক্ত আল ইসলাম, নজরুল ইসলাম,  শুভ ও সুমনের সাথে বারবার যোগাযোগ করেও  তাদের সাথে কথা বলা যায় নি।
বাঙ্গরা বাজার থানার অফিসার ইনচার্জ(ওসি) মোহাম্মদ কামরুজ্জামান তালুকদার  বলেন, শিশুটির মা রুজিনা আক্তার বাদী হয়ে মামলা দায়ের করেছেন। আসামীরা পলাতক রয়েছে ।  পুলিশ তাদের আটক  করার জন্য অভিযান অব্যাহত রেখেছে।

আরও পড়ুন

  • বৃহত্তর কুমিল্লা এর আরও খবর