• ঢাকা
  • বৃহস্পতিবার, ১৩ই জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ৩০শে জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
প্রকাশিত: ২ অক্টোবর, ২০২২
সর্বশেষ আপডেট : ২ অক্টোবর, ২০২২
Designed by Nagorikit.com

শারদীয় দূর্গাৎসবের মণ্ডপ পরিদর্শন ইউপি চেয়ারম্যানের

কুমিল্লা জার্নাল

মোস্তাফিজুর রহমান।।
বুড়িচং উপজেলার ৫নং পীরযাত্রাপুর ইউনিয়নের একমাত্র পূজামণ্ডপ সাদকপুর। যার শুভ উদ্বোধন করেন উক্ত ইউনিয়নের চেয়ারম্যান, বুড়িচং উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি আলহাজ্ব আবু তাহের।

গত শনিবার থেকে শুরু হয় হিন্দু ধর্মাবলম্বীদের সব চেয়ে বড় উৎসব দুর্গাপূজা। বুড়িচং উপজেলায় এবৎসর মোট পূজামণ্ডপ রয়েছে ৪১টি। প্রত্যেকটি মণ্ডপে রয়েছে বাড়তি নিরাপত্তা এবং সাজানো হয়েছে রংবেরঙে। পূজা মণ্ডপের নিরাপত্তার জন্য প্রশাসনের পাশাপাশি জন প্রতিনিধিদেরও দায়িত্ব দেওয়া হয়।

গতকাল শনিবার সাদকপুর ডা. চিত্তরঞ্জন সূত্রধরের বাড়িতে দূর্গাপূজার উদ্বোধন কালে দিক নির্দেশনামূলক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। যুবলীগ নেতা ডা. দুলাল হোসেনের সঞ্চালনায় এবং ডা. চিত্তরঞ্জন সূত্রধরের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি এবং উদ্বোধক হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, ৫নং পীরযাত্রাপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ্ব আবু তাহের।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি বলেন, হিন্দু সম্প্রদায় এদেশে কোন সংখ্যালঘু না তাদের সব চেয়ে বড় পরিচয় হলো তারা মানুষ। তারা আমাদের সাথের একই সমাজের লোক তারা আমাদের প্রতিবেশী। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা থেকে কঠোর নির্দেশনা দেওয়া আছে তাদের সর্বোচ্চ নিরাপত্তা প্রদানের জন্য। তাদের এই মহা উৎসব দুর্গাপূজায় কোন কুচক্রী মহল যাতে ক্ষতি করতে না পারে সেই জন্য প্রশাসন তৎপর রয়েছে এবং আমাকে দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে আপনাদের সর্বোচ্চ নিরাপত্তা নিশ্চিত করার জন্য। আমি আমার অবস্থান থেকে সর্বোচ্চ নিরাপত্তা নিশ্চিত করবো আপনারা নির্ভয়ে, নির্ধিদায় আপনারা আপনাদের ধর্মীয় উৎসব পালন করবেন।

তিনি আরো বলেন, একটি অভিযোগ পাওয়া যায় হিন্দুদের দুর্গাপূজায় নাকি মাদক সেবন করে নাচানাচি করে। এবং মুসলমান বন্ধুদেরকে দাওয়াত দিয়ে মাদকের আসর বসায়। যদি এই ধরনের কোন অভিযোগ পাওয়া যায় তাহলে সে যেই হোক তাকে আইনের আওতায় আনা হবে। এবং দায়িত্বরত আনসার,গ্রাম পুলিশ যেন তাকে পুলিশের হাতে তুলে দেয়। মাদকের বিষয়ে আমি সব সময় কঠোর সে যদি আমার সন্তানও হয় আমি তাকে ছাড় দেবো না। কারণ এটা হচ্ছে সমাজের সব চেয়ে বড় ব্যধি।
এসময় আরো বক্তব্য রাখেন, বীর মুক্তিযোদ্ধা গাজী মো. সরু মিয়া মেম্বার, প্যানেল চেয়ারম্যান আবদুল হক মাস্টার, সাবেক প্যানেল চেয়ারম্যান সুলতান মুন্সি, আওয়ামী লীগ নেতা সুবেদার আবদুল খালেক, বীর মুক্তিযোদ্ধা মো. ফরিদ উদ্দিন ভূঁইয়া, সাদকপুর পূর্বপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো.হাবিবুর রহমান জীবন, অবসর প্রাপ্ত আর্মি তমিজ উদ্দিন, যুবদল নেতা মো. সাব্বির হোসেন, ডা. হুমায়ুন আহমেদ।

এসময় উপস্থিত ছিলেন, পূজা কমিটির সভাপতি ২নং ওয়ার্ডের মেম্বার ডা. নজরুল ইসলাম, যুবলীগ নেতা এবং পূজা কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক সাইফুল ইসলাম বাদল, ৫নং ওয়ার্ডের মেম্বার মো. জসিম উদ্দিন, সাদেকুর রহমান, মোশাররফ, ডা. সুভাষ চন্দ্র সূত্রধর, ডা. শিবু চন্দ্র সূত্রধর প্রমুখ।

আরও পড়ুন

  • কুমিল্লা এর আরও খবর