• ঢাকা
  • বৃহস্পতিবার, ১৩ই জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ৩০শে জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
প্রকাশিত: ৭ আগস্ট, ২০২২
সর্বশেষ আপডেট : ৭ আগস্ট, ২০২২
Designed by Nagorikit.com

২৩ টি পাসপোর্ট সহ ভিসা প্রতারক লালমাই’র সাফায়েত গ্রেপ্তার

কুমিল্লা জার্নাল

স্টাফ রিপোর্টার: ইউরোপের বিভিন্ন দেশে জনশক্তি পাঠানোর নামে টাকা আত্মসাৎকারীকারী প্রতারকচক্রের মূল হোতাকে গ্রেপ্তার করার কথা জানিয়েছে র‌্যাব। ভুক্তভোগীর সুনির্দিষ্ট অভিযোগের ভিত্তিতে র‌্যাব-৩-এর একটি দল রাজধানী ঢাকার সবুজবাগ এলাকা থেকে গত বৃহস্পতিবার রাতে তাঁকে গ্রেপ্তার করে। এ সময় তাঁর কাছ থেকে ২৩টি পাসপোর্ট, দুটি মোবাইল ফোন ও দুটি সিমকার্ড উদ্ধার করা হয়।

 

গ্রেপ্তার মো. সাফায়েত হোসেন কুমিল্লার লালমাই উপজেলার আলীশ্বর গ্রামের অহিদুর রহমানের ছেলে ও পেরুল উত্তর ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান মোঃ আবুল বাসারের শ্যালক।

 

র‌্যাব জানায়, প্রতারকচক্র প্রথমে ভুক্তভোগীদের ইউরোপে উচ্চ বেতনে চাকরির প্রলোভন দেখিয়ে পাসপোর্ট এবং প্রাথমিক খরচ বাবদ এক লাখ টাকা নিয়ে নিত। পরে আরো বিভিন্ন খরচ দেখিয়ে ধাপে ধাপে ভুক্তভোগীদের কাছ থেকে টাকা আদায় করত। এভাবে প্রতারণার মাধ্যমে বিপুল অর্থ উপার্জন করেছেন সাফায়েত হোসেন। এ ঘটনায় তার বিরুদ্ধে পল্টন থানায় মামলা হয়েছে। আসামীর পক্ষে ওকালতনামায় তদবিরকারী তার ভগ্নিপতি ইউপি চেয়ারম্যান মোঃ আবুল বাসার।

 

গতকাল শুক্রবার রাতে র‌্যাব-৩-এর স্টাফ অফিসার (অপস ও ইন্ট শাখা) পুলিশ সুপার বীণা রানী দাস জানান, র‌্যাব-৩ জানতে পারে, সবুজবাগ এলাকায় একটি প্রতারকচক্র মধ্যপ্রাচ্য হয়ে ইউরোপে পাঠানোর প্রলোভন দেখিয়ে বিদেশ গমনেচ্ছু বেকার তরুণ-তরুণীদের কাছ থেকে মোটা অঙ্কের টাকা হাতিয়ে নিয়ে তাঁদের সর্বস্বান্ত করছে। পরে সুনির্দিষ্ট অভিযোগের ভিত্তিতে র‌্যাব-৩ গোয়েন্দা নজরদারি ও ছায়া তদন্তের ভিত্তিতে সাফায়েতকে গ্রেপ্তার করে।

 

প্রাথমিক অনুসন্ধান ও জিজ্ঞাসাবাদে জানা যায়, সাফায়েতের জনশক্তি রপ্তানির কোনো লাইসেন্স নেই। কিন্তু তিনি দীর্ঘদিন ধরে জনশক্তি রপ্তানির নামে মিথ্যা প্রলোভন দেখিয়ে বিদেশে যেতে ইচ্ছুক বেকার তরুণ-তরুণীদের কাছ থেকে ৩০ লাখ টাকা আত্মসাৎ করেছেন। ভুক্তভোগীরা এ বিষয়ে প্রতিকার চাইলে যোগাযোগ বন্ধ করে দেন সাফায়েত।

আরও পড়ুন

  • লিড এর আরও খবর