• ঢাকা
  • রবিবার, ২৩শে জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ৯ই আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
প্রকাশিত: ২ মার্চ, ২০২২
সর্বশেষ আপডেট : ২ মার্চ, ২০২২
Designed by Nagorikit.com

কুমিল্লা বাঁচাও’ সমন্বয় মঞ্চ ১০৩ সদস্যের নাগরিক সমন্বয় কমিটি গঠন

কুমিল্লা জার্নাল

কুমিল্লা প্রতিনিধি।।

কুমিল্লা বিভাগ ঘোষণা, ঢাকা-কুমিল্লা রেলপথ নির্মাণ, কুমিল্লা বিমানবন্দর চালু, নগর উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ গঠন, মেট্রোপলিটন পুলিশ প্রতিষ্ঠা, গোমতী নদী ও লালমাই পাহাড় রক্ষা, কুমিল্লা সিটি কর্পোরেশনের অন্তর্ভুক্ত দক্ষিণ অঞ্চলের ইপিজেডের রাসায়নিক বর্জ্য নিষ্কাশন সমস্যা, কুমিল্লা শহরের জলাবদ্ধতা নিরসনে ড্রেনেজ সিস্টেমের সংস্কার, বর্ষাকালীণ জলাবদ্ধতা, পয়োবর্জ্য নিষ্কাশন সমস্যা, যানজট নিরসন, বিভিন্ন এলাকার নালা ও খালের অবৈধ দখল উচ্ছেদ, গোমতী নদীর অবৈধ দখল, লালমাই পাহাড় সংরক্ষণ, ওয়াশা গঠনসহ পূর্ণাঙ্গ মেট্রোপলিটন সিটি, ঘোষনার দাবী নিয়ে ‘কুমিল্লা বাঁচাও’ সমন্বয় মঞ্চ নাগরিক সমন্বয় কমিটি গঠন করা হয়েছে। ড. শাহ্ মোঃ সেলিমকে প্রধান সমন্বয়ক করে সংগঠক বীরমুক্তিযোদ্ধা মোহাম্মদ আলী ফারুক, বিশিষ্ট সাংস্কৃতিক সংগঠক বদরুল হুদা জেনু, কুমিল্লা বারের সাবেক সভাপতি এডভোকেট কাজী নাজমুস সাদাত, দেশবরেণ্য জাতীয় পুরস্কার প্রাপ্ত চিত্র শিল্পী উত্তম গুহ, কুমিল্লা সরকারী কলেজের সাবেক অধ্যক্ষ সৈয়দা বিলকিছ আরা বেগমকে যুগ্ম সমন্বয়ক এবং এডভোকেট আখতার হোসেনকে সমন্বয়ক সচিব করে ১০৩ সদস্য বিশিষ্ট কমিটি গঠন করা হয়। ইতোমধ্যে কুমিল্লা বাঁচাও সমন্বয় মঞ্চ ঘোষিত ১৫ দফা দাবি আদায়ের লক্ষ্যে নবগঠিত কমিটির কুমিল্লার অবিসংবাদিক নেতা সাবেক সাংসদ বীরমুক্তিযাদ্ধো মনিরুল হক চৌধুরী, সংসদ সদস্য এডভোকেট আবুল হাসেম খান ও কুমিল্লা সিটি কর্পোরেশনের মেয়র মনিরুল হক সাক্কুর সাথে মতবিনিয়ম করেছেন। উক্ত কমিটিতে বিশিষ্ট সাহিত্য ব্যক্তিত্ব বীরমুক্তিযাদ্ধো জহিরুল হক দুলাল, বীরমুক্তিযোদ্ধা বাহাউদ্দিন রেজা (বীর প্রতিক), বীরমুক্তিযোদ্ধা এডভোকেট গোলাম ফারুত, সাবেক সচিব আনায়োর ফারুক কোহিনুর, প্রফেসর মিজানুর রহমান, সাবেক ভিসি, জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়, ওষুধ প্রশাসনের সাবেক মহা পরিচালক মেজর জেনারেল মোস্তাফিজুর রহমান, প্রফেসর আলী আশরাফ, সাবেক ভিপি, কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়, স্থপতি আবু সাঈদ এম, আহমেদ, সভাপতি, সার্ক স্থাপতি পরিষদ, আন্তর্জাতিক বরেণ্য চিত্র শিল্পী নাজমা আক্তার, বীরমুক্তিযাদ্ধো ওবায়দুল কবির মোহন, কুমিল্লার বিশিষ্ট সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব এডভোকেট শহিদুল হক স্বপনসহ কুমিল্লার বিভিন্ন পর্যায়ের শিক্ষাবিদ, রাজনৈতিক ও সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব, পেশাজীবি সংগঠনের নেতৃবৃন্দকে নিয়ে এ কমিটি করা হয়। কুমিল্লার জনপ্রতিনিধি, পেশাজীবিসহ অন্যান্য সংগঠনের সাথে সমন্বয় করে অবিলম্বে উক্ত দাবী সমূহ সমাধানে ঢাকা এবং কুমিল্লায় জনমত সৃষ্টিতে সংহতি সমাবেশ অনুষ্ঠিত হবে। প্রধান সমন্বয়ক ড. শাহ মোঃ সেলিম জানান, কুমিল্লা ও কুমিল্লা সিটি কর্পোরেশনের অধীন দীর্ঘদিন যাবৎ বিরাজমান ড্রেনেজ সিস্টেম অপরিপূর্ণতা, বর্ষাকালীন জলাবদ্ধতা, পয়ঃবর্জ্য নিষ্কাশন সমস্যা, যানজট নিরসন, সংশ্লিষ্ট এলাকার ড্রেন ও খালের অবৈধ দখল উচ্ছেদ, কুমিল্লার প্রাণ গোমতী নদীর অবৈধ দখল উচ্ছেদ সহ নদী রক্ষা ও পাহাড় সংরক্ষণ, দীর্ঘদিন যাবৎ আন্দোলনরত সিটি কর্পোরেশন দক্ষিন এলাকার জনগনের ইপিজেড এর রাসায়নিক বর্জ্য/পয়ঃবর্জ্য অপরিকল্পিত ব্যবস্থাপনায় সিটি কর্পোরেশনের প্রায় ৫০টি গ্রামের জনবসতি, প্রাণি জীব পরিবেশ, কৃষিক্ষেত্রসহ জনজীবনের অস্তিত্ব রক্ষাকরণ, কুমিল্লা সিটি কর্পোরেশনের মেট্রোপলিটন পুলিশ, নগর উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ গঠনপূর্বক মেট্রোপলিটন সিট ঘোষনা, কুমিল্লা বিমানবন্ধর পুনরায় চালু, ঢাকা-কুমিল্লা সরাসরি রেল লাইন স্থাপনসহ সর্বোপরি কমিল্লা বিভাগ ঘোষণার দাবী জানিয়ে আসছে। উল্লেখিত সমস্যা সমাধান ও দাবী আদায়ে দীর্ঘদিন যাবৎ বিভিন্ন রাজনৈতিক ও সামাজিক সংগঠনগুলোর মধ্যে কুমিল্লা জেলা কৃষক সমবায় পরিষদ (বর্জ্য ব্যবস্থাপনা উন্নয়ন কমিটি), কুমিলা সিটি কর্পোরেশন সীমানা বর্ধিতকরণ বাস্তবায়ন কমিটি, ঢাকা- কুমিল্লা সরাসরি রেল লাইন বাস্তবায়ন ঢাকাস্থ লিয়াজ কমিটি, কুমিল্লা সদর দক্ষিণ ক্রীড়া ও সাংস্কৃতিক ঐক্য পরিষদ, কুমিল্লা সিটি – দক্ষিণ মুখি প্রবেশ পথ উন্নয়ন কমিটি, ইউনিভার্সিটি ক্লাব, পরিবেশ আন্দোলনসহ অন্যান্য সংগঠন সমূহ বিভিন্ন কর্মসূচী দীর্ঘদিন যাবৎ চালিয়ে আসছে। তারই ধারাবাহিকতায় গত ১৯ ফেব্রæয়ারী শনিবার সকাল ১১টায় কুমিল্লার স্থানীয় একটি হোটেলে ঢাকা-কুমিল্লা সরাসরি রেলপথ বাস্তবায়নের দাবীতে টাকাস্থ লিয়াজু কমিটির আহবায়ক ঢাকাস্থ কুমিল্লার বিশিষ্ট ব্যবসায়ী আবদুল হক এর সভাপতিত্বে মত বিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়। উক্ত সভায় উপস্থিত ছিলেন কুমিল্লার বিশিষ্ট রাজনৈতিক ব্যক্তিত্ব সাবেক সাংসদ মনিরুল হক চৌধুরী, কমিলা সিটি কর্পোরেশনের মেয়র মনিরুল হক সাক্কু, ঢাকাস্থ লিয়াজু কমিটির সাধারণ সম্পাদক সাবেক ছাত্রনেতা ওবায়দুল হক, দাউদকান্দি পৌরসভার সাবেক চেয়ারম্যান কে.এম.আই খলিল, লিয়াজু কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক সফিকুর রহমান দুলাল, কুমিল্লা ভিক্টোরিয়া কলেজের সাবেক অধ্যক্ষ ও কুমিল্লা শিক্ষা বোর্ডের সাবেক চেয়ারম্যান অধ্যক্ষ রুহুল আমিনসহ বিভিন্ন পর্যায়ের নেতৃবৃন্দ। একই তারিখে বিকাল ৫টায় সিটি কর্পোরেশনের দক্ষিণ এলাকার বিভিন্ন সমস্যা নিয়ে আন্দোলনরত সামাজিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দের আমন্ত্রনে কুমিল্লা সরকারি কলেজের সাবেক অধ্যক্ষ অধ্যাপক সৈয়দা বিলকিছ আরা বেগম এর সভাপতিত্বে আরেকটি মত বিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়। উক্ত মত বিনিময় সভায় উপস্থিত থেকে তাদের দাবীর প্রতি একাত্মতা ঘোষণা করে আলোচনায় অংশগ্রহণ করেন বিশিষ্ট রাজনৈতিক ব্যক্তিত্ব ও সাবেক সাংসদ মনিরুল হক চৌধুরী, সাবেক ছাত্র নেতা ও কুমিল্লার এককালীন বিশিষ্ট রাজনৈতিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠক, ইউনিভার্সিটি ক্লাব, কুমিল্লার প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি ও ক্লাব লিঃ চেয়ারম্যান ড. শাহ্ মোঃ সেলিম, বীর মুক্তিযাদ্ধো মোতাহের হোসেন বাবুল, বীর মুক্তিযাদ্ধো ওবায়দুল কবির মোহন, বিশিষ্ট রাজনৈতিক নেতা ন্যাপ সংগঠক মোহাম্মদ আলী ফারুক, সাংস্কৃতিক সংগঠক এডভোকেট শহিদুল হক স্বপন, এডভোকেট আক্তার হোসেন, কমরেড আসাদুল্লাহ, অধ্যক্ষ মীর আবু তাহের, এডভোকেট শামসুল আলম মোহন, সাংস্কৃতিক সংগঠক খন্দকার হুমায়ুন কবীর, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান রাশেদা আক্তার, ক্রীড়া সংগঠক ফারুক চৌধুরী, বিশিষ্ট সামাজিক সংগঠক মোঃ সিরাজুল হক, ইমরান জুরকারনাইন ইমন। (গণসংহতি আন্দোলন) সহ অন্যান্য নেতৃবৃন্দ। পরবর্তীতে গত ২০ ও ২২ ফেব্রæয়ারী সন্ধ্যা ৭টায় কুমিল্লা সিটি কর্পোরেশনের উল্লেখিত সমস্যা সমূহের সমাধানের লক্ষ্যে কান্দিরপাড়স্থ ইউনিভার্সিটি ক্লাব, কুমিল্লা অস্থায়ী কার্যালয়ে এক মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়। এছাড়াও সংসদ সদস্য এডভোকেট আবুল হাসেম খান ও কুমিল্লা সিটি কর্পোরেশনের মেয়র মনিরুল হক সাক্কুর সাথে মতবিনিয়ম করেছেন সমন্বয় কমিটি। নবগঠিত কমিটির প্রধান সমন্বয়ক ড. শাহ মোঃ সেলিম আগামী দিনে কুমিল্লা ও কুমিল্লা সিটি কর্পোরেশনের বিভিন্ন সমস্যা সমাধানে সকলকে দলমত নির্বিশেষে এগিয়ে আসার আহ্বান জানান।

আরও পড়ুন